বালিয়াকান্দিতে শ্মশানের জায়গার নামে মালিকের জমি দখলের পায়তারা করছে প্রতিপক্ষ - Bangla News 24 Online

BANGLA NEWS 24 ONLINE বাংলা নিউজ ২৪ অনলাইন। Bangla Newspaper বাংলা নিউজ পেপার - BD News 24, BD News Today and Banlga News Today ||

Breaking

Home Top Ad

Monday, December 21, 2020

বালিয়াকান্দিতে শ্মশানের জায়গার নামে মালিকের জমি দখলের পায়তারা করছে প্রতিপক্ষ

বালিয়াকান্দিতে শ্মশানের জায়গার নামে মালিকের জমি দখলের পায়তারা করছে প্রতিপক্ষ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের নারায়নপুর মৌজায় জেলা পরিষদের জায়গায় দীর্ঘ দিন ধরে আব্দুল মালেক শেখ লিজ গ্রহণ করে নিয়ম অনুযায়ী ভোগদখল করে আসছেন।

এই জমি একই গ্রামের একটি কুচক্রী মহল শ্মশানের নামের কমিটি বানিয়ে আব্দুল মালেক শেখের লিজ প্রাপ্ত জমিতে শ্মশানের নাম করে দখল করার পায়তারা করছে। এই ঘটনায় রাজবাড়ী আদালতে মামলা দায়ের করেছেন ভূক্তভোগী আব্দুল মালেক শেখ।

বালিয়াকান্দি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ জানান, আদালত থেকে আমার উপর তদন্ত প্রতিবেদন চাইলে সরজমিনে তদন্ত পূর্বক আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে। তদন্তকালে দেখা যায়, নিম্ন তপসিলভূক্ত জমিতে কোন শ্মশান ঘাট নাই। নারায়নপুর শহীদ স্মৃতি সার্বজনীন মহাশ্মশান নামে একটি শ্মশান আছে সেখানে আমরা সরকারী ভাবে উন্নয়ন মূলক কাজের জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে সেখানে উন্নয়নমূলক কাজ করা হয়েচ্ছে। অপর পক্ষ কতিপয় ব্যক্তিরা যে জমি শ্মশান বলে দাবি করেন সেখানে কোন শ্মাশান নাই। উল্লেখিত জমি আব্দুল মালেক শেখের ভোগদখলে রয়েছে।

নারায়নপুর শহীদ স্মৃতি সার্বজনীন মহাশ্মশান কমিটির সাধারণ সম্পাদক দুলাল কুমার বিশ্বাস জানান, যেখানে শ্মাশানের কথা বলে বিভিন্ন অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে একটি মহলের লোকজন সেখানে কোন শ্মশান নাই। নারায়নপুর শুধুমাত্র একটি শ্মশান আছে এই শ্মশানে এলাকার লোকজন মারা গেলে দাহ করা হয়। শুধু আব্দুল মালেককে হয়রানী করছে একটি চক্র।

উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের নারায়নপুর গ্রামের মৃত কেসমত শেখের ছেলে আব্দূল মালেক শেখ জানান, রাজবাড়ী জেলা পরিষদের জায়গা আমি নিয়ম অনুযায়ী ডিসি আর নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে ভোগ দখলে আসছি। উক্ত জমি এলাকার ভূমি দস্যু কতিপয় ব্যক্তিরা একটি শ্মশান কমিটির নাম করে আমার ভোগ দখলীয় দমি দখল করার পায়তারা করছে। এ বিষয়ে আমি রাজবাড়ী আদালতে মামলা দায়ের করেছি। মামলাটি চলমান আছে। তিনি আরো জানান, আমার এই জমিতে শ্মশানের কথা বলে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্যের ভিত্তিতে অপপ্রচার চালানো হয়েছে। আমি তাদের বিরুদ্ধে শাস্তির দাবি জানাই। 

No comments:

Post a Comment