পাবনায় বাজেটে বিড়ির উপর মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান - Bangla News 24 Online

BANGLA NEWS 24 ONLINE বাংলা নিউজ ২৪ অনলাইন। Bangla Newspaper বাংলা নিউজ পেপার - BD News 24, BD News Today and Banlga News Today ||

Breaking

Home Top Ad

Thursday, December 17, 2020

পাবনায় বাজেটে বিড়ির উপর মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

 পাবনায় বাজেটে বিড়ির উপর মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করেছে বিড়ি শ্রমিকরা।

আর কে আকাশ, পাবনা প্রতিনিধি : ২০


২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেটে বিড়ি শিল্পের ওপর কর বাড়ানোর প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে বিড়ি শ্রমিকরা। পাবনা জেলা বিড়ি মজদুর ইউনিয়নের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার পাবনা উপ-কর কমিশনারের কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন এবং এনবিআর এর চেয়ারম্যান বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। প্রস্তাবিত বাজেটে বিড়িতে প্যাকেট প্রতি ৪টাকা ও সিগারেটে মাত্র ২টাকা দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে এ মানববন্ধন করেছেন তারা।

মানববন্ধন চলাকালে পাবনা জেলা বিড়ি মজদুর ইউনিয়নের সভাপতি হারিক হোসেন এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শামীম ইসলামের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ বিড়ি শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি এমকে বাঙ্গালী, কার্যকরী সভাপতি আমিন উদ্দিন বিএসসি, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান প্রমূখ। 

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে প্রতি প্যাকেট বিড়িতে ট্যাক্স বৃদ্ধি করা হয়েছে ৪ টাকা। যা শতকরা বৃদ্ধি হার ২৮ দশমিক ৫৭ শতাংশ। অপরদিকে কম দামি সিগারেটে প্রতি প্যাকেটে দাম বৃদ্ধি হয়েছে মাত্র ২ টাকা। যা শতকরা বৃদ্ধির হার ৫ দশমিক ৪১ শতাংশ।

অর্থাৎ সিগারেটের চেয়ে বিড়িতে প্যাকেট প্রতি ২ টাকা বেশি এবং শতকরা ২৩ দশমিক ১৬ শতাংশ বেশি। এটি বিড়ি শিল্পের ওপর চরম বৈষম্যমূলক আচরণ। বিদেশি সিগারেট কোম্পানিকে সুবিধা দিতেই এ বৈষম্য করা হয়েছে। যা দেশীয় শিল্পের সঙ্গে বিমাতাসুলভ আচরণ ছাড়া কিছুই নয়। দীর্ঘদিন ধরে বিড়ি শিল্প ধ্বংস করার জন্য যে গভীর ষড়যন্ত্র ছিল প্রস্তাবিত বাজেটে তা প্রতিফলিত হয়েছে- বলেন বক্তরা। 

তারা বলেন, সরকার একদিকে মুখে ধূমপান বন্ধের কথা বললেও সিগারেটের বাজার সহজলভ্য করে দিয়েছে। ফলে সরকার ধূমপান মুক্ত করার জন্য যে ঘোষণা দিয়েছে তার পরিবর্তে সিগারেটের ভোক্তা বৃদ্ধি পাবে বৈ কমবে না।

নেতৃবৃন্দ অনতিলম্বে সরকারের কাছে ২০২০-২১ অর্থবছরে বাজেটে ধার্যকৃত অতিরিক্ত ৪ টাকা প্যাকেট মূল্যস্তর সম্পূর্ণ প্রতাহার, সপ্তাহে ৬দিন বিড়ি শ্রমিকদের কাজের নিশ্চয়তা, মজুরি বৃদ্ধি, বিড়ির উপর অর্পিত ১০% অগ্রিম আয়কর প্রত্যাহার, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সময় চালুকৃত বিড়িকে কুটির শিল্প হিসেবে ঘোষণা এবং বিড়ি শিল্পকে শুল্কমুক্ত ঘোষণার দাবি জানান।

মানববন্ধন শেষে কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট ডিভিশন পাবনার ডেপুটি কমিশনার ও বিভাগীয় কর্মকর্তার মাধ্যমে এনবিআর এর চেয়ারম্যান বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

No comments:

Post a Comment